ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০১৭, ৯ চৈত্র ১৪২৩

ছাত্রীদের কাছে প্রশ্নঃ ‘বলো, ধর্ষণ কীভাবে করা হয়?’

২০১৭ জানুয়ারি ১১ ২০:০৩:০৩
ছাত্রীদের কাছে প্রশ্নঃ ‘বলো, ধর্ষণ কীভাবে করা হয়?’

এবার ভারতের এক বিধায়কের অশালীন প্রশ্নের মুখে পড়েছেন ছাত্রীরা।ধর্ষণ কীভাবে করা হয়? এমন প্রশ্নই ছাত্রীদের কাছে করলেন ভারতের বিহার রাজ্যের এক বিধায়ক।

অদ্ভুত এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের বিহার রাজ্যের হাজিপুর এলাকায়।ছাত্রীরা অস্বস্তি বোধ করলেও নাছোড়বান্দা বিধায়ক ছাত্রীদের উদ্দেশে সমানে প্রশ্ন করে চললেন, ‘বলো, ধর্ষণ কীভাবে করা হয়? বলো.. বলো…।’

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা যায়, ৮ জানুয়ারি হাজিপুরের একটি ছাত্রী হোস্টেলে এক কিশোরী মারা যান। পরে অভিযোগ ওঠে, ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে ছাত্রী হোস্টেলে যান স্থানীয় বিধায়ক ও বিহারের রাষ্ট্রীয় লোক সমতা পার্টির নেতা লালন পাসোয়ান। এরপর তিনি হোস্টেলের ছাত্রীদের ডেকে এই ছাত্রীর বিষয়ে তথ্য জানতে চান। একপর্যায়ে তিনি সমবেত ছাত্রীদের উদ্দেশে ধর্ষণ কীভাবে হয়, তা জানতে চান।

ঘটনার সময় লালন পাসোয়ানের সঙ্গীরা তাঁকে থামার অনুরোধ করলেও তিনি কোনো কথায় কর্ণপাত করেননি। একের পর এক কিশোরীকে তিনি একই প্রশ্ন করেন।

এদিকে, এ ঘটনার কথা জানাজানি হতেই চারদিকে রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায়। লালনের ক্ষমা চাওয়ার দাবিও ওঠে। যদিও সেই সব দাবিকে উড়িয়ে দিয়ে লালন পাসোয়ান বলেন, ‘আমি কোনো খারাপ উদ্দেশ্যে ছাত্রীদের প্রশ্নগুলো করিনি। বিষয়টি আমি বিধানসভায় তোলার জন্য ছাত্রীদের কাছ থেকে বিস্তারিত জানতে চেয়েছিলাম। তাই এর জন্য ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।

তবে এ ঘটনা সংবাদমাধ্যমের বরাতে চারদিকে ছড়িয়ে পড়তেই বিহারের রাষ্ট্রীয় লোক সমতা পার্টির মুখপাত্র নীরজ কুমার জানান, বিষয়টি নিয়ে তাঁরা লালন পাসোয়ানের কাছে কৈফিয়ত চাইবেন।

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ খবর

আন্তর্জাতিক - এর সব খবর

উপরে